চোখে ক্রিম ব্যবহারের যে ভুলগুলো আপনি করছেন

চোখে ক্রিম ব্যবহারের যে ভুলগুলো আপনি করছেনচোখের ক্লান্তি, ফোলাভাব, বলিরেখা, কালি ইত্যাদি ঢাকতে আই ক্রিম ব্যবহার করা হয়। তবে ভুল ব্যবহারে উপকারের বদলে ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। রূপচর্চাবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে আই ক্রিম ব্যবহারের ভুলগুলো তুলে ধরা হয়।

এডুকেশন অফ ক্লারিন্সের ভাইস-প্রেসিডেন্ট ক্রিস্টি সেলা বলেন, “সঠিক উপায়ে আই ক্রিম ব্যবহার করা হলে বয়সের ছাপ, ফোলাভাব, বলিরেখা ইত্যাদি নানাসমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। তবে কিছু সাধারণ ভুলের কারণে উপকারের তুলনায় ক্ষতিই হতে পারে।”

এই প্রতিবেদনে আই ক্রিম ব্যবহারের সাধারণ কিছু ভুলের বিষয় উল্লেখ করা হল।

বেশি পরিমাণে ক্রিম ব্যবহার করা
প্রয়োজনের তুলনায় বেশি আই ক্রিম ব্যবহারের ফলে চোখে অস্বস্তি অনুভূত হতে পারে। এমনকি চোখ ফুলেও যেতে পারে। তাই সব সময় অল্প পরিমাণে আইক্রিম ব্যবহার করা উচিত। এক ফোঁটা পরিমাণ আই ক্রিমই যথেষ্ঠ।
যদি প্রথমবার ব্যবহারের পরও ত্বক শুষ্ক মনে হয় এবং আবারও ব্যবহার করার প্রয়োজন পরে তবে প্রথমবার ব্যবহারের পর পাঁচ মিনিট অপেক্ষা করে আবার ক্রিম লাগাতে হবে।

ঘষাঘষি করা চোখের চারপাশের ত্বক খুবই সংবেদনশীল ও কোমল হয়। তাই এই ত্বকে অতিরিক্ত চাপ প্রয়োগ করা এবং ঘষাঘষি করা বেশ ক্ষতিকর।
পরিমাণ মতো ক্রিম নিয়ে আঙুলে খানিকটা মিশিয়ে নিয়ে, হালকাভাবে চোখের নিচে এবং চারপাশে ক্রিম লাগাতে হবে।
সরাসরি চোখের নিচে ও উপরের পাতায় ক্রিম লাগানো

চোখের নিচে এবং উপরের পাতায় ক্রিম সরাসরি লাগালে চোখ ফুলে যেতে পারে। তাই চোখের খানিকটা নিচে এবং ভ্রুয়ের অংশে ক্রিম লাগাতে হবে। এই অংশে ক্রিম লাগালেই তা চোখের চারপাশে ছড়িয়ে যাবে।

Related Posts