যৌনতার কবিতা

 

ffd76f0a-ec40-4ff8-ad65-d73শৌনক দত্ত তনু

যৌনতার কবিতা

 

রাত্রি,আজকাল প্রায়ই শুনি

কবিতা মানে যৌনতা!

যৌনতা মানে একটি নারীর

প্রতিটি অঙ্গের ময়নাতদন্ত

পাঠকের চোখে ভেসে উঠে

একটি নদী হয়ত কবির চেয়েও

বেশী।ডালিম,আপেল,কমলালেবু

কিচ্ছু বাদ যায় না উপমায়।

শরীর শিরশির করে

একটি ব্যর্থ জীবনের দুর্দান্ত গন্ধ

বয়ে নিয়ে যায় ক্যানভাস।

কোন এক কবিকে বলেছিলাম

বলে সে খুব ক্ষ্যাপে ছিলো।

বলেছিলো যৌনতার কবিতা

লেখার জন্য যোগ্যতা চাই!

যার তার কর্ম নয়,আপনার তো

নয়ই।আসলেই হয়ত আমার নয়

সবাই সব পারবে তাই কি হয়!

তাছাড়া আমি নারীকে নদীই দেখি

পবিত্রতায় নতজানু হই বারবার

কেননা সভ্যতা তো তারই দান।

তবুও আজ লিখতে বসেছি

গা শিরশির না হোক

মনটা ভাবুক,নারীর হাতে চাবুক।

আমি আকাশ আর পাহাড়ের

সঙ্গম দেখেছি।নারী সঙ্গম আজো

হয়নি বলে আমার খেদ নেই।

কেননা আকাশ আর পাহাড়ের

সঙ্গমেই আমি জেনেছি বৃষ্টি নামে,

ক্লান্তি আসে মেঘে মেঘে!

আকাশ যখন ছুঁয়ে দেয় পাহাড়ের চূড়া

পাহাড় শিউরে ওঠে।তারপর

পাহাড় আকাশ স্পর্শে প্রজাপতি হয়।হরিণীর মত ছুটে বেড়ায়।

আকাশ আরো নীচে নেমে আসে

স্পর্শাতীত সুখে ঝাঁপটে ধরে

পাতারা ছন্দ তুলে মেঘেরা

ফেলে ঘন ঘন শ্বাস।এলোমেলো

চুলে বাতাস উড়ে।পাহাড় কুঁকড়ে

যায় শীত্‍কারে খামছে ধরে লতা

পাতা গাছেদের শেকড়।

গাছেরা আরো শব্দ তুলে শনশন

আকাশের লেহন আর মেঘেদের

গর্জন। তারপর বৃষ্টি আসে,

এই সঙ্গম যৌনতা কিনা জানিনা

তবে নদী যদি নারীই হয়

তবে এই সঙ্গম শেষে আমি দেখেছিলাম

অতৃপ্ত শুকনো নদী ভরে ভরে

যেতে থাকল

আমরা কোনদিন দেখিনি,

এমন সব স্বপ্নে…

আমরা কোনদিন পড়িনি,

এমন সব ভাষায়…

আমরা কোনদিন উড়িনি,

এমন সব ডানায়..

Related Posts

Comments

comments