বৃষ্টিতে চুলের যত্ন

banglanews24.today_302_113505গত কয়েকদিন ধরে বৃষ্টির থামার কোনো নাম নেই। এসময়ে বৃষ্টিতে ভিজে আমাদের অনেকেরই চুলের অবস্থা শোচনীয়, তাহলে? এই বর্ষায় চুলের সমস্যা  থেকে মুক্তি পেতে আমাদের বিভিন্ন পরামর্শ দিয়েছেন ওমেন্স ওয়ার্ল্ডের ওমেন্স ওয়ার্ল্ডের অন্যতম পরিচালক রূপ বিশেষজ্ঞ ফারনাজ আলম।

ফারনাজ আলম বলেন, ঋতু অনুযায়ী প্রস্তুতি আমাদের চেহারায় এনে দেবে ভিন্ন মাত্রা। ঝুমঝুম বৃষ্টির দিন কার না ভালো লাগে? তবে বর্ষার আবহাওয়া যতই রোমান্টিক হোক না কেন, এই স্যাঁতসেঁতে আবহাওয়া আমাদের চুলের জন্য মোটেও সুখকর নয়। চুলপড়া ও তৈলাক্ত খুশকির সমস্যা সবাইকে কমবেশি ভোগায়। তাই বর্ষায় চুলের ধরণ বুঝে নিয়মিত পার্লারে গিয়ে পরিচর্যা করুন আর ঘরে নিন বাড়তি কিছু যত্ন।

বৃষ্টির পানি মাথায় লাগলে অবশ্যই চুল ধুয়ে ফেলতে হবে। কারণ বৃষ্টির পানি বেশি সময় মাথায় থাকলে মাথার তালু ও চুলের গোড়ায় ফাংগাল ইনফেকশন হতে পারে।

বর্ষায় স্যাতসেতে আবহাওয়ায় চুল বেশি পড়ে আর মাথায় দেখা দেয় তৈলাক্ত খুশকি। এসময় বারবার শ্যাম্পু না করে সপ্তাহে দু-তিনবার শ্যাম্পু করা উচিত।

চুল ধোয়ার পর তাড়াতাড়ি শুকিয়ে ফেলতে হবে, বেশিক্ষণ ভেজা রাখা যাবেনা।

বর্ষার আবহাওয়ায় জলীয় বাষ্প বেশি থাকে, ফলে চুল অগোছালো দেখায়। তাই এ সময় নিয়মিত কন্ডিশনিং করা উচিত। সিলিকন বেস্‌ড সিরামও ব্যবহার করতে পারেন।

বর্ষার সময় চুল পড়া বেড়ে যায়। চুল পড়া কমাতে ও খুশকি দূর করতে ঘরে তৈরি এই হারবাল প্যাকটি ব্যবহার করতে পারেন-

চুলের যত্নে সপ্তাহে অন্তত একবার চুলে মেহেদি, পেঁয়াজের রস, লেবুর রস, ডিম এবং টক দইয়ের প্যাক লাগিয়ে আধা ঘণ্টা রেখে শ্যাম্পু করুন।

বৃষ্টিভেজা চুলের জন্য গরম তেল মালিশ খুবই ভালো। এ ক্ষেত্রে মাথার তালুতে আঙুল দিয়ে ঘষে ম্যাসেজ করুন। তারপর গরম পানিতে তোয়ালে ভিজিয়ে মাথায় ভাপ নিতে পারেন।

এক চামচ ভিনেগার, আধাকাপ টক দই ও একটি ডিম মিশিয়ে চুলে লাগিয়ে আধাঘণ্টা পর ধুয়ে ফেলুন।

এসময় সপ্তাহে অন্তত একবার করে নিয়মিত এই প্যাক থেকে যে কোনো একটি ব্যবহার করলে চুল পড়া ও তৈলাক্ত খুশকির সমস্যা অনেকাংশে দূর হবে।

Related Posts